নতুন প্রকাশনা সমূহ:

ক্রুজ কন্ট্রোল কি এবং কিভাবে কাজ করে?

০৪ নভে, ২০১৬ চাকা বিডি মন্তব্য নাই টিপস এন্ড ট্রিক্স, হোম

ফিচারটি লিখেছেন মোরশেদুল আলম।

ইংরেজি ‘Cruise’ শব্দটির মানে হচ্ছে সমুদ্র যাত্রা’ বা ‘উদ্দেশ্যহীন ভ্রমন’। কিন্তু অটোমোবাইল ড্রাইভিং-এ এটা কিভাবে হতে পারে? সমুদ্রে একটি সুনির্দষ্ট গতিতে নির্দিষ্ট অভিমুখে জাহাজ চলালেই হল, সমুদ্রের মাঝখানে বারবার দাঁড়ানো বা ব্রেক কষবার প্রয়োজন পড়েনা। কার ড্রাইভিং-এর মত বারবার এক্সেলারেইট করা আর প্রয়োজন মত ব্রেক কষে দাঁড়ানোর ঝামেলা নেই। অটোমোবাইল ড্রাইভিং-এ এমনই একটি প্রযুক্তি যুক্ত হয়েছে বর্তমানে, যাকিনা গাড়িকে একটি সুনির্দষ্ট গতিতে পারিচালনা করতে সক্ষম, যাতে দূরের যাত্রায় গাড়ির এক্সেলারেটর চেপে ধরে রাখতে না হয় দীর্ঘ্যক্ষণ।

c1

এই ক্রূজ কন্ট্রোল আসলে কি এবং প্রযুক্তিটি কিভাবে কাজ করবে- সেটাই এখানে আলোচ্য।

আমাদের দেশে, বিশেষ করে রিকন্ডিশন্ড গাড়ির বাজারে ক্রূজ কন্ট্রোল নিয়ে নানান ভুল ধারনা প্রচলিত। অনেকে কেবল ব্লুটুথ অপশনকেই ক্রূজ কন্ট্রোল ধরে নিয়ে গাড়ি কেনে। এমন হাস্যকর ধারনা নিশ্চয় কোন কোন অসাধু ব্যবসায়িদের দ্বারা প্রচলিত হয়ে থাকতে পারে। জানা থাকলে বোকামিপূর্ণ ক্ষতি এড়ানো যায়।

c2

মোটর চালিত গাড়িতে যে প্রযুক্তিটি বা যে সিসটেম স্বয়ংক্রিয়ভাবে গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রন করে সেটিই ক্রূজ কন্ট্রোল। এটি কখনো স্পিড কন্ট্রোল, কখনো অটোক্রূজ বা কখনো টেম্পোমেট বলেও পরিচিত অনেকের কাছে। এটি এমন একটি ইলেক্ট্রোনিক ডিভাইজ যা আপনার মোটরযানকে একটি নির্দিষ্ট গতিতে স্থির করে দেয়। এবং এক্সেলারেটর পেডেল থেকে আপনার পা’কে মুক্তি দেয়। অর্থ্যাং এই ডিভাইজের সাহায্যে আপনি এক্সেলারেটর পেডেল চেপে ধরে নারেখেও গাড়িকে নির্দিষ্ট গতিতে পরিচালিত করতে পারবেন ইচ্ছেমত।

ক্রূজ কন্ট্রোল প্রযুক্তিটি আনা হয়েছে মূলতঃ এমনসব হাইওয়ে রোডের জন্য যেখানে বারবার দাঁড়াবার প্রয়োজন পড়েনা। বাইরের দেশে আন্তঃদেশীয় হাইওয়ে এবং আমাদের দেশে আন্তঃবিভাগীয় হাইওয়ে গুলোতে এই পদ্ধতি ব্যবহার উপযোগি হবে। এই প্রযুক্তিটি এখন বিভিন্ন আধুনিক মোটরগাড়ি গুলোতে সংযুক্ত করা হচ্ছে। এবং অনেকেই এখন এই পদ্ধতির সুবিধা ও স্বাচ্ছন্দ্য উপযোগিতার জন্য ক্রূজ কন্ট্রোল ব্যবহারে আগ্রহী হচ্ছে।

c3

ক্রূজ কন্ট্রোল যেভাবে ব্যবহৃত হবে

  • প্রথমতঃ যেকোন ভ্রমনে বা যাত্রায় ড্রাইভিং পরিস্থতি বিবেচনা করতে হবে। মনে রাখতে হবে ক্রূজ কন্ট্রোল ঝুঁকিপূর্ণ আবহাওয়ায় ব্যবহার উপযোগি নয়। এছাড়া দূরত্ব ও সময়ের বিবেচনায় যেকোন প্রতিবন্ধকতা সম্পর্কে আগাম সতর্ক থাকা জরুরি। বিশেষ করে যদি প্রথমবারের মত এই প্রযুক্তি ব্যবহার করেন কেউ।
  • রাস্তার অবস্থা বিবেচনায় গাড়িতে স্পিড কতটা দেয়া হবে সে বিষয়ে সচেতন হতে হবে। সাধারনতঃ ক্রূজ কন্ট্রোলে ঘন্টায় ৫৫ থেকে ৭০ মাইল স্পিড ব্যবহৃত হয়। ক্রূজ কন্ট্রোলে এটিই আদর্শ বিবেচনা করা হয়। বৈধ স্পিড লিমিটের উপরে এটি ব্যবহার করা যাবেনা। এটি বিপদজনক ও বেকামি মাত্র।
  • প্রায় গাড়িতে ক্রূজ কন্ট্রোল অপশনটি স্টিয়ারিং হুইলের পাশে থাকে। আমাদের এখানে আসা টয়োটার রিকন্ডিশন্ড কার গুলোতে এভাবেই আছে। গাড়িকে কাঙ্খিত গতিতে নিয়ে ক্রূজ কন্ট্রোল অপশন থেকে ‘অন’ বাটন চেপে এটি উপভোগ করা যায়।
  •  ক্রূজ কন্ট্রোল এক্টিভেট হওয়ার পরে কাঙ্খিত গতি পূনরায় সেট করা সম্ভব এমন কিছু প্লাস- মাইনাস বাটন থাকে এই সিসটেমে। প্রায় গাড়িতেই এমন বাটনের অপশন থাকে। নতুবা এক্সেলারেটর পেডেল চেপে গাড়ি রেইস করা যায়। একবার সেট করা হয়ে গেলে এক্সেলারেটর থেকে পা সরিয়ে নেয়া যায়। তখন গাড়ি আপন গতিতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলতে থাকে।
  • ক্রূজ কন্ট্রোলে চালানো অবস্থায় রাস্তার উপর সতর্ক দৃষ্টি রাখা খুবই জরুরি। গাড়ি থামানোর প্রয়োজন পড়লে প্রথমে ক্রূজ কন্ট্রোল সিসটেম অফ বা ডিএক্টিভেট করতে হব। পরে ব্রেক ব্যবহার করা যাবে। নিরাপত্তার খাতিরে বেশিরভাগ মডেলের গাড়িতে ব্রেক কষবার সাথে সাথেই ক্রূজ কন্ট্রোল সিসটেম ডিএক্টিভেট হয়ে যায়।

দূরের যাত্রায় ক্রূজ কন্ট্রোলের ব্যবহার প্রকৃতই খুব উপযোগি ব্যাপার। এতে ড্রাইভিং সহজ ও আরামদায়ক। ক্রূজ কন্ট্রোল ছাড়া লংজার্নি খুবই ক্লান্তিকর, অন্তত ড্রাইভারের কাছে তো বটেই। এছাড়া ব্রেকের ব্যবহার কম হওয়ায় এবং গতিতে বারবার উঠানামা করতে হয়না বলে এতে ফুয়েল কনযাম্পশান কম।

তবে ভুল ও অসতর্ক ব্যবহার এক্ষেত্রে মারত্মক দূর্ঘটনার কারন হতে পারে। ড্রাইভিং’র সময় রিলাক্স থাকতে গিয়ে অনেকে অমনযোগী হয়ে পড়ে। বিশেষ করে মোড় বা টার্ন গুলো খেয়াল করেনা অনেকে। বর্ষা বা খারাপ আবহাওয়ায় গাড়ির চাকা ট্রাকশন লুজ করতে পারে।

আমেরিকায় ক্রূজ কন্ট্রোল বেশ জনপ্রিয়। ইউরোপিয়ান কারের তুলনায় আমেরিকান কারে এই প্রযুক্তির ব্যবহার বেশি। কেননা সাধারণ ভাবে আমেরিকায় রোড বেশ প্রশস্থ ও সোজা। আর গন্তব্যও বেশ দূরে দূরে। আমাদের দেশে এমন রাস্তা খুঁজে পাওয়া কি খুব দুষ্কর হবে? বর্তমানে ঢাকা-চট্টগ্রাম রোড চার লেনে উন্নিত করা হচ্ছে। এখানে ক্রূজ কন্ট্রোলের ব্যবহার কতটা স্বাচ্ছন্দ্যের হবে?

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

41 − 32 =

sidebar ad space 1

ads1

sidebar ad space 2



আমাদের সাথে থাকুন



2 - 11 =  

sidebar ad space 3



  আমাদের অনুসরণ করুণ

যোগাযোগ করুণ

www.chakabd.com

email address:
info@chakabd.com
chakabd2015@gmail.com

67/D, Yakub South Center,Kalabagan, Dhaka-1205
Phone No. 01711281218

  টুইটার আপডেট

  ফেসবুক আপডেট